আদমদীঘিতে টাকায় মিমাংশা হলো গৃহবধুর ইজ্জত

68
বগুড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক, আদমদীঘি 

বগুড়ার আদমদীঘিতে এক গৃহবধুকে (৪০) শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে আব্দুল ওহাব খন্দকার লেবু (৬৫) নামের ব্যক্তির বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত লেবু উপজেলার বড় আখিড়া গ্রামের বাসিন্দা। এ ঘটনায় ধামা চাপা দেওয়ার জন্য গ্রাম্য শালিসের মাধ্যমে টাকার দিয়ে মীমাংসার চেষ্টা করছেন স্থানীয় প্রভাবশালী মহল। এ নিয়ে ওই গ্রামে ব্যাপক চাঞ্চল্যকর সৃষ্টি হয়েছে।

 

ওই ভুক্তভোগী বলেন, গত মঙ্গলবার সকালে জ্বালানি পাতা ঝাড়ু দিয়ে বাড়িতে ফেরার পথে আব্দুল ওহাব খন্দকার লেবু তাকে ঝাপটে ধরে। কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালান। পরে আমার চিৎকারে পরিবার ও আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে পালিয়ে যান তিনি। এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্যের কাছে অভিযোগ করলে দিন পার হলেও তিনি কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি। পরদিন বুধবার রাতে এক স্থানীয় প্রভাবশালী মহল গ্রামের একটি ক্লাবে শালিসে সুষ্ঠু বিচারের নামে হাত-পা ধরে ৫ হাজার টাকা দিয়ে মীমাংসা করে ঘটনাটি ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা করেছেন। ওই ভুক্তভোগী আরও বলেন, বিচার সন্তুষ্টজনক না হওয়ার ঘটনাস্থল থেকে চলে আসি। এ বিষয়ে সুষ্ঠু বিচার পেতে থানায় মামলা করবেন বলে জানান তিনি।

 

ভুক্তভোগীর মেয়ে বলেন, ইতিপূর্বে ওই ব্যক্তি ফকিরনিসহ এই গ্রামের কয়েক জনের সাথে এমন শ্লীলতাহানি করেছেন। তার পরিবারের কাছে অভিযোগ করলে মানুষিক রোগী বলে ঘরোয়া মীমাংসা মাধ্যমে সমাধান করেন। ওই লোকটির বিরুদ্ধে উপযুক্ত শাস্তির দাবী জানাই।

ইউপি সদস্য মোঃ এখলাছ বলেন, এ বিষয়ে তার কাছে কেউ অভিযোগ করেননি।

 

আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি জালাল উদ্দীন বলেন, ওই গৃহবধূ অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

print