আদমদীঘিতে সেচপাম্পের তারে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে ছেলে নিহত বাবা আহত

45
আদমদীঘিতে সেচপাম্পের তারে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে ছেলে নিহত বাবা আহত

আহসান হাবীব মির্জা, আদমদীঘি (বগুড়া) 
বগুড়ার আদমদীঘিতে সেচপাম্পের বৈদ্যুতিক সংযোগের তারে জড়িয়ে বাবার সামনে ছেলে আবু তালহার (১৯) মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে বাবা নজিবর রহমান আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ৬ অক্টোবর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সেচপাম্প মালিকের শাস্তির দাবী জানিয়ে উত্তোজিত গ্রামবাসী বগুড়া-নওগাঁ মহাসড়ক ঘন্টা ব্যপী অবরোধ করেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার সকালে আদমদীঘির শিবপুর গ্রামের নজিবর রহমান তার কলেজ পড়ুয়া ছেলে আবু তালহাকে (১৯) সাথে নিয়ে ধানক্ষেত পরিচর্যার জন্য মাঠে যাচ্ছিলেন। ওই একই গ্রামের বাসিন্দা জনৈক মোস্তফার সেচপাম্পে বাঁশের খুটির মাধ্যমে নেয়া বৈদ্যুতিক সংযোগের তার ঝুলে থাকায় আবু তালহা ওই তারে জড়িয়ে ছটপট করতে শুরু করে। বাবা নজিবর রহমান ছেলেকে বাচাঁতে দৌঁড়ে এলে তিনিও বিদ্যুৎ স্পর্ষে আহত হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। কিছুক্ষণ পর জ্ঞান ফিরে দেখেন ছেলে মারা গেছেন।

ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত গ্রামবাসী সেচপাম্প মালিকের বিচারের দাবী জানিয়ে বগুড়া-নওগাঁ মহাসড়কের শিবপুর মোড়ে এক ঘন্টাব্যাপী অবরোধ কর্মসূচি পালন করেন। এতে সড়কে যানবাহন আটকে পড়ে দূর্ভোগের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

আদমদীঘি থানার ওসি জালাল উদ্দীন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। বর্ষা মৌসুমে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন না করায় সেচপাম্প মালিকের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

print