আনন্দধামের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

49
আনন্দধামের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

নারায়ণগঞ্জ অফিস

২৬শে মার্চ, ২০২১ খ্রীস্টাব্দ, আনন্দধামের উদ্যোগে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার ৫০ বৎসর উদযাপন উপলক্ষে “স্বাধীনতার ৫০ বৎসর ও আমাদের অর্জন”- শীর্ষক আলোচনা সভা ও মুক্তিযোদ্ধাদের সম্বর্ধনা ও প্রতিবন্ধী শিশু-কিশোরদের সান্নিধ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় ।

স্থানীয় ইডেন থাই এন্ড চাইনিজ রেস্টুরেন্টে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের কর্মসূচির মধ্যে ছিলো মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারন, মুক্তিযুদ্ধাদের সম্মাননা সনদ প্রদান, দেশের স্বাধীনতার ৫০ বসর পুর্তির কেক কাটা, মুক্তিযোদ্ধা ও প্রতিবন্ধী শিশু-কিশোরদের সম্মানে নৈশভোজের আয়োজন। পবিত্র কোরান থেকে তেলোয়াতের মাধ্যমে জাতীয় সংগীত দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়।

মহান মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে সম্মাননা সনদ গ্রহন করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা, প্রবীণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব আলহাজ্ব সৈয়দ লুৎফর রহমান।

আনন্দধামের নির্বাহী চেয়ারম্যান হাসিনা রহমান সিমুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সভাতে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন, সিনিয়র সাংবাদিক আবু সাউদ মাসুদ, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবলীগের সম্মানিত সভাপতি সাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু, সমাজকল্যান কার্যালয়ের জেলা সমন্বয়কারী সামসুজ্জামান ভাষানী, প্রজন্ম ৭১ এর নীলা আহমেদ নিশি।

সাময়িক ছুটিতে থাকা পাবলিক প্রসিকিউট এডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন জাতির জনক বংগবন্ধু ও মহান মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা প্রদর্শন করে বলেন তোমাদের আত্মত্যাগে আমাদের এই বাংলাদেশ। মুক্তিযোদ্ধারা জীবন্ত কিংবদন্তি, তারা অমর, তাদের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা।

সিনিয়র সাংবাদিক ও কলামিস্ট জনাব আবু সাউদ মাসুদ বলেন আজ আমারা আনন্দিত স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসবের এই আয়োজনে। আনন্দধামকে ধন্যবাদ জানিয়ে উনি বলেন স্বাধীনতা শাশ্বত, একে সমুন্নত রাখা আমাদের দায়িত্ব।

জাকিরুল আলম হেলাল বলেন স্বাধীনতার এই সুবর্ণ জয়ন্তীতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও মহান মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে বলবো তোমাদের কাছে আমরা চিরঋনি। বঙ্গবন্ধু আলোকবর্তিকা হয়ে পথ দেখাবে চিরকাল।

চেম্বার পরিচালক সাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে আনন্দধামের এই মহতি উদ্যোগের ভুষয়ী প্রশংসা করে বলে আপনাদের আজকের এই আয়োজন ভবিষ্যত প্রজন্মকে তাদের দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন করবে বলেই আমার বিশ্বাস।

হাসিনা রহমান সিমু বলেন যে সমস্ত মা বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে আমাদের এই স্বাধীনতা, তারা চিরকাল আমাদের মাথার মুকুট হয়ে থাকবে।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আনন্দধামের অতিরিক্ত চেয়ারম্যান মোঃ শাহ আলম, মহাসচিব আজিজুল ইসলাম বাবু, ভাইস চেয়ারম্যান মতিউর রহমান মুক্তি, আনন্দধাম সাহিত্য পরিষদের সভাপতি এনামুল হক প্রিন্স, সনাতনের সভাপতি বাবু শ্যামল দত্ত, আইনজীবী ফোরামের সভাপতি এডভোকেট শেখ জসীম, কলেজ রোড সভাপতি সাহাদাত হোসেন, মোঃ শহিদুল্লাহ, মোক্তার হোসেন, মোঃ আলামিন রাব্বি প্রমুখ।

print