চাঁদাবাজদের তালিকায় সোনারগাঁয়ের পলিথিন জাকির

1195

নারায়ণগঞ্জ অফিস

নারায়ণগঞ্জের চিহ্নিত চাঁদাবাজদের পাশে এবার উঠে এসেছে সোনারগাঁয়ের এক চাঁদাবাজের নাম। যার অত্যাচারে অতিষ্ট ওই এলাকার সাধারন মানুষ। তবে তাকে নিয়ন্ত্রনে পুলিশের কোন নেই বলে জানিয়েছে সাধারন জনতা। সোনারগাঁয়ের পিরোজপুর এলাকায় মানুষ তার ভয়ে অতিষ্ঠ।

জানা গেছে, তিনি সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সারের ঘনিষ্টজন। ফলে তার অপকর্মের জন্য পুরস্কৃতও করা হয়ে থাকে। জেলা পুলিশের সফল কর্মকর্তা এসপি মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ শিগ্রই তার বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন এমনটাই আশা করেন সাধারন মানুষ। এছাড়াও নারায়ণগঞ্জের র‌্যাব ১১ তাদের চৌকস বাহিনীর মাধ্যমে এ চাঁদাবাজ সম্পর্কে খোজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

তবে পলিথিন জাকির ছাড়াও নারায়ণগঞ্জে সক্রিয় রয়েছে কয়েক ডজন চাঁদাবাজ। তবে এসপি হারুনের এ্যাকশনের ফলে অনেকেই নারায়ণগঞ্জের বাইরে নিরাপদ অবস্থান নিয়ে তাদের চাঁদাবাজি চালিয়ে যাচ্ছেন বলেও জানা গেছে। তাদের কেউ কেউ গ্রেপ্তার হয়েছেন। কারাগারে অবস্থান করলেও তাদের চাঁদাবাজি থেমে নেই। থানা পুলিশকে মাশোয়ারা দিয়েও অনেকে তাদের চাঁদাবাজি চালিয়ে যাচ্ছেন।

যাদের নাম সাধারন মানুষ বলছেন তারা হলেন, কাউন্সিল ইকবাল, কাউন্সিলর ফারুক, কাউন্সিলর বাদল, কাউন্সিলর হাসান, কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি, কাউন্সিলর আলী হোসেন আলা, কাউন্সিলর ইফতেখার আলম খোকন, কাউন্সিলর কবির, কাউন্সিলর ডিস বাবু, কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধান, শিমরাইলের দেলোয়ার ও টুটুল।

এছাড়াও যারা চাঁদাবাজির সাথে জড়িত তাদের নাম সংগ্রহ চলছে। সাধারন মানুষের মতামতের ভিত্তিতে তাদের সম্পর্কে খোজ খবর নেয়া হচ্ছে। অচিরেই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে র‌্যাব পুলিশ এমনটা আশা করে সাধারন মানুষ।

print