ডোপ টেস্টের পর পুলিশ সার্জেন্ট সাময়িক বরখাস্ত

56
বাংলাদেশ পুলিশ লগো

নওগাঁ প্রতিনিধি

ডোপ টেস্টে মাদকাসক্ত হওয়ার প্রমাণ মেলায় নওগাঁ জেলা পুলিশের ট্রাফিক বিভাগে কর্মরত আতাউর রহমান নামের এক সার্জেন্টকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন নওগাঁর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রকিবুল আকতার।

রকিবুল আকতার বলেন, মাদকাসক্ত পুলিশ সদস্যদের শনাক্ত করতে সারা দেশে ডোপ টেস্ট শুরু হয়েছে। এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সম্প্রতি নওগাঁ জেলা পুলিশের বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজন মাদকাসক্ত পুলিশ সদস্যের ডোপ টেস্ট করানো হয়। তাঁদের মধ্যে নওগাঁ ট্রাফিক বিভাগে কর্মরত আতাউর রহমান নামের এক সার্জেন্টের মাদকাসক্ত থাকার প্রমাণ মিলেছে। ডোপ টেস্টে মাদক গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্তসহ তাঁর বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা গ্রহণ করা হয়েছে।
ওই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, মাদকাসক্ত পুলিশ সদস্যদের শনাক্তের কার্যক্রম অব্যাহত আছে। আরও বেশ কিছু পুলিশ সদস্যের ডোপ টেস্ট করা হয়েছে। কয়েক দিনের মধ্যে এসবের ফল হাতে পৌঁছাবে। ডোপ টেস্টে মাদকাসক্তের প্রমাণ মিললে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।

জেলা পুলিশ সূত্র জানায়, সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় দেশের মধ্যে নওগাঁর বিভিন্ন থানা, ফাঁড়ি ও ইউনিটে কর্মরত পুলিশের মাদকাসক্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি। নওগাঁয় পুলিশের মধ্যে মাদকাসক্তের হার বেশি বিবেচনায় ডোপ টেস্ট শুরু হয়েছে।

print