ফতুল্লায় স্কয়ার সোয়েটারের মালিকের লাঠিয়াল বাহিনীর হামলায় ১৮ শ্রমিক আহত

67
ফতুল্লায় স্কয়ার সোয়েটারের মালিকের লাঠিয়াল বাহিনীর হামলায় ১৮ শ্রমিক আহত

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার টাগারপাড় এলাকার স্কয়ার সোয়েটারের মালিকের লাঠিয়াল বাহিনীর হামলায় ২ জানুয়ারী (শনিবার) ১৮ শ্রমিক আহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় সোহেল নামের এক শ্রমিক ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করে।

অভিযোগে জানা গেছে, সোহেল ওই কারখানায় লিংকিং সেকশনে কাজ করেন। তার কার্ড নং ৩২১৫। তিনি মুন্সিগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান থানার শ্রীনগর গ্রামের নুরুল ইসলাম মোল্লার ছেলে। সে দীর্ঘদিন ধরে ওই কারখানায় কাজ করে আসছে। মহামারী করোনাতেও ওই প্রতিষ্ঠানের উৎপাদন অব্যাহত ছিলো। ৩১ ডিসেম্বর কাজ শেষে তিনি বাসায় ফেরেন। শনিবার সকালে কারখানার মূল ফটকে গেলে কারখানার পরিচালক বাতেন শিকদার, পরিচালক ইকবাল শিকদার, ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ হান্নান, ইয়ান কন্ট্রোলার কায়েস, লিংকিং সুপারভাইজার শহিদ, আয়নাল, পিএম মোহাম্মদ আলী, লিংকিং ইনচার্জ নাছির, ডিস্ট্রিবিউশন খোকন শিকদার, বোরহান, কাশেমসহ অজ্ঞাত ২০/২৫ জন মালিক পক্ষের লাঠিয়াল বাহিনী দেশীয় অস্ত্রসহ শ্রমিকরা কিছু বোঝার আগেই অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় বাতেন ও ইকবাল অভিযোগকারী সোহেলের মাথায় আঘাত করে। সোহেলকে বাঁচাতে অন্য শ্রমিকগন এগিয়ে এলে লাঠিয়াল বাহিনী সকলের উপর একযোগে হামলা চালায়। এতে ১৮ শ্রমিক আহত হয়। আহত শ্রমিকগন হলেন, জোহরা, হালিমা, মিনা, ডালিয়া, তানিয়া, হালিমা, নাসিমা, মাকসুদা ১, মাকসুদা ২, শামীম হোসেন, হায়দার, সেলিম, রেজাউল, জাহিদুল, মুরাদ ও বাবুল।

আহতদের ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার তদন্ত পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনা সত্য। বিষয়টি তদন্ত চলছে। তদন্তের পর এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

print