মানবতার দৃষ্টান্ত এসপি হারুন

2395

অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোর আরো এক দৃষ্টান্ত এসপি হারুনের
অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোর আরো এক দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করলেন বাংলার সিংহাম বলে পরিচিতি পাওয়া নারায়নগ্ঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ।

ঘটনাটি ছিল নিষ্ঠুরতার এক জঘন্য পর্ব। ঘটনাস্থল নারায়নগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সাইলোগেইট সংলগ্ন। সম্প্রতি ছেলে ধরা বলে অপপ্রচারের শিকার গনপিটুনীতে নিহত প্রতিবন্ধি সিরাজুল ইসলামের বাবা আঃ রশিদ (৬৫) ঈদের দিন বিভিন্ন বাসা-বাড়ী থেকে কোরবানীর গোশত সংগ্রহ করেছিল। নিজের খাওয়ার অংশটুকু রেখে বাকী গোশতগুলো বিক্রি করে দেয় কিছু টাকা পাওয়ার আশায়।

সেই গোশত কিনে নেয় স্থানীয় কলাবাগ এলাকার নরপশু ফজল করিম(৪৮)। কিন্তু গোশতের টাকা না দেয়ার অজুহাতে সন্ধ্যা ৭টায় সাইলো গেইট ৪ তলার সামনে মনিরের চায়ের দোকানে রশিদ মিয়াকে ডেকে নেয়। সেখানে তার সাথে খারাপ আচরন করে এবং গোশত ভাল নয় বলে চড়থাপ্পর মেরে রশিদ মিয়ার পকেট থেকে আরো ৪৫০ টাকা ছিনিয়ে নেয়।

এক কান দুই কান করে ঘটনার খবরটি চলে যায় পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদের কানে। তিনি ঘটনা অবগত হয়ে তাৎক্ষনিক নির্দেশ দেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসিকে ব্যবস্থা নিতে। এ ছাড়াও ক্ষতিগ্রস্থ নির্যাতিত রশীদ মিয়ার হাতে নগদ ২৫‘শ টাকা অনুদান হিসাবে তুলে দেন।

পরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে সাথে সাথে নরপশু ফজল করিমকে গ্রেফতার করে তার বিরুদ্ধে মামলা এন্ট্রি করেন। মামলাটি দায়ের করেন গনপিটুনীতে সিরাজুল ইসলামের ভাই ও নির্যাতিত রমদি মিয়ার ছেলে।
এ ঘটনায় আবারো প্রশংসিত হয় নারায়নগঞ্জের নিরীহ নতার আস্থার প্রতীক হয়ে উঠা এসপি হারুন অর রশীদ।

print