সালাউদ্দিনের চাঁদাবাজিতে সিদ্ধিরগঞ্জের রেন্টএ কারে বিক্ষোভ

190
সালাউদ্দিনের চাঁদাবাজিতে সিদ্ধিরগঞ্জের রেন্টএ কারে বিক্ষোভ

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি
সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাংরোডে রেন্টএকার মালিক সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক নূর হোসেনর সহযোগী রেন্টএকারের চাঁদা কালেকটর সালাউদ্দিনের চাঁদাবাজির কারণে রেন্টএ কার মালিক ও শ্রমিকরা অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছেন মালিক ও শ্রমিকরা। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে মালিক ও শ্রমিকরা একজোট হয়ে সালাউদ্দিনকে আর চাঁদা দিবেনা মর্মে অঙ্গীকার করে। রেন্টএকারের প্রতিটি গাড়ির জন্য সালাউদ্দিন ১৪০০ টাকা করে চাঁদা কালেকশন করে। েেরন্টএকার মালিক ও শ্রমিকদের অভিযোগ চাঁদা আদায় করে সালাউদ্দিন আত্মসাত করছে। যার ফলে সিদ্ধিগঞ্জে বিভিন্ন স্থানে রেন্টএকারের গাড়ি চালকরা সালাউদ্দিনের কারণে বিড়ম্বনায় হয়ে পড়ছে। প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা চাঁদা কালেকশন করে সালাউদ্দিন। গাড়ির মালিক ও চালকরা অভিযোগ করেন লকডাউনের কারণে রেন্টএকার বন্ধ ছিল, জমানো টাকা পয়সা যা ছিল এবং দারদেনা করে তারা নিঃশ্ব হয়েছে। এখন আর তারা কোনভাবেই সালাউদ্দিনকে চাঁদা দিবেনা। গাড়ির মালিক আনু, মাইনুদ্দিন, লিটন মিস্ত্রি, শফিক, টিটু,জলিল, তুহিন,খোকন, সবুজ, সুমনও শরীফসহ গাড়ির মালিক ও চালকরা অভিযোগ করেন বিএনপিপন্থি চাঁদাবাজ সালাউদ্দিনকে আমরা আর রেন্টএকারে কোনভাবেই চাঁদাবাজি করতে দেবনা এ জন্য তারা থানা আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। এ ব্যাপারে সালাউদ্দিন বলেন মালিক সমিতি আমাকে না চাইলে আমি আর এ কাজ করবোনা জানিয়ে আরও বলেন রেন্টএকার মালিক সমিতি এখন দুভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। একপক্ষ আমাকে রাখতে চাইছে আরেক পক্ষ আমার বিরুদ্ধে।

print