সৃষ্টির সেরা মানুষ কেন অমানুষ হয়ে যাচ্ছে

291
আক্তার হোসেন

আকতার হোসেন
মহান আল্লাহতায়ালা মানুষকে ভাল মন্দ, ন্যায় অন্যায় বুঝার ক্ষমতা দিয়ে সৃষ্টি করে ১৮ হাজার মাখলুকাতকে সর্বশ্রেষ্ঠ হিসাবে সম্মানে ভূষিত করে দুনিয়াতে প্রেরণ করেছে। অথচ প্রতিহিংসার কারণে পেট্রোল বোমা মেরে শিশুসহ নিরীহ মানুষ হত্যা করছে ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখার জন্য বিশ^ নেতৃবৃন্দের মধ্যে ক্ষমতার লড়াই চলছে। নির্বিচারে পাখির মত নিরপরাধ মানুষদের হত্যা করছে। যৌতুকের কারণে নিজ স্ত্রীকে নির্যাতন চালাচ্ছে, হত্যা করছে। অর্থের লোভে নিজের শিশু সন্তানকে দিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি করাচ্ছে। অপরাধ জগতের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, ঘুষ, দুর্নীতি ক্ষমতার অপব্যবহার করে অবৈধ সম্পদের পাহাড় বানাচ্ছে। রাস্তাঘাট, খাল, বিল, নদী-নালা, সরকারি-বেসরকারী সম্পত্তি অবৈধভাবে দখল করে খাচ্ছে। নেশা জাতীয় দ্রব্য যেমন মদ, গাজা, হেরোইন, ফেনসিডিল, ইয়াবা ইত্যাদি সেবন করে মানুষ নিজেই নিজেকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। জাল দলিল করে অন্যের সম্পত্তি আত্মসাৎ করছে। প্রতিনিয়ত শিশু হত্যা, গুম, খুন ও নির্যাতন করছে। ধনী গরিবের উপর, সবল দুর্বলের উপর অত্যাচার নির্যাতন চালাচ্ছে। যখন তখন প্রাকৃতিক গ্যাস অপচয় করছে এরা কি মানুষ না অমানুষ। অথচ কবির ভাষায় ‘মানুষ মানুষের জন্য’ সেই মানুষ আজ মানুষের ক্ষতি সাধনের উৎসবে মেতে উঠেছে। মানুষ সভ্যতা ছেড়ে বর্বরতার দিকে এগুচ্ছে। শান্তির পথ ছেড়ে অশান্তির পথে ধাবিত হচ্ছে। ন্যায়ের পথ ছেড়ে অন্যায়ের পথে ঝুকে পড়ছে। ভালো মানুষের সঙ্গ ছেড়ে খারাপ মানুষের সাথে বন্ধুত্ব গড়ছে। যার ফলে জন্মদাতা পিতা-মাতাকে ভরণ-পোষণ না দিয়ে ঘর থেকে তাড়িয়ে দিচ্ছে। মহান আল্লাহতায়ালা মানুষকে পৃথিবীতে সুন্দরভাবে বসবাস করার জন্য গাছপালা, নদনদী, খাল-বিল, পশু-পাখি, পাহাড়-পর্বত, তরু-লতা ইত্যাদি দিয়ে মানুষের বসবাসযোগ্য একটি সুন্দর পরিবেশ তৈরী করে দিয়েছে। অথচ সেই মানুষ অবৈধভাবে খাল-বিল, নদী-নালা ভরাট করে, বৃক্ষ নিধন করে, পাহাড়-পর্বত কেটে, যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনা ফেলে মলমূত্র ত্যাগ করে, কলকারখানার বর্জ্য ফেলে খাল-বিল, নদী-নালার পানি দূষিত করছে। প্রয়োজনে অপ্রয়োজনে ইচ্ছায় অনিচ্ছায় আল্লাহ তায়ালার নেয়ামত পানি অপচয় করছে। মানুষ আজ আইন-কানুনের তোয়াক্কা করছে না। যার যার খেয়াল খুশি মতো চলছে। দিন দিন সচেতন মানুষগুলো অসচেতন হয়ে পড়ছে। বিবেকবান মানুষগুলো বিবেকহীন হয়ে পড়ছে। ধর্মীয় মূল্যবোধের অভাব দেখা দিচ্ছে। এভাবে মানুষ চলতে থাকলে সভ্যতার চরম বিপর্যয় ঘটবে। পরিবেশ ও সমাজ নষ্ট হয়ে যাবে। মানুষের উপর আল্লাহর গজব নেমে আসবে। কিছু অমানুষের জন্য ভালো মানুষেরা বিপদগ্রস্থ হবে। তাই এখন থেকেই ভাবতে হবে কেন মানুষগুলো দিন দিন অমানুষ হয়ে যাচ্ছে। কিভাবে অমানুষদেরকে মানুষের কাতারে নিয়ে আসা যায়। মানুষের কঠিন রোগ হলে যেমন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা মেডিকেল বোর্ড বসিয়ে রোগ নির্ণয় করে। সেই মোতাবেক ওষুধ দিয়ে রোগাক্রান্ত মানুষকে সুস্থ করা হয়। তেমনি অমানুষগুলোকে মানুষ করার জন্য আলেম, ওলামা, পীর মাশায়েখ, দার্শনিক, লেখক, বুদ্ধিজীবিদের নিয়ে বোর্ড গঠন করে কারন নির্ণয় করে সে মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করার এখনই সময়। মানুষ হিসেবে সুন্দরভাবে বসবাস করার জন্য বিশ^ নেতৃবৃন্দ যেখানে পরিবেশ রক্ষায় এগিয়ে আসার জন্য সকলকে আহবান জানাচ্ছেন। যেখানে কতিপয় মানুষ নিজের স্বার্থের জন্য সমগ্র পরিবেশ নষ্ট করছে। পরিবেশ ও সমাজ নষ্টকারীদের বিরুদ্ধে কঠোরভাবে আইন প্রয়োগ করলেই কেবল ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য নিরাপদ সমাজ ও পরিবেশ গড়ে তোলা সম্ভব। ‘জীব আত্মার উত্থান-পতনের জগতে মানব আত্মার অপরিবর্তনশীল ও নতুন জীবন লাভ করার নামই মানুষ’।

আকতার হোসেন
কার্যনির্বাহী সদস্য
নারায়ণগঞ্জ সিটি প্রেসক্লাব

print