স্ত্রীর ওপর অভিমান করে যুবকের আত্মহত্যা

63
আত্মহত্যা

আহসান হাবীব মির্জা, আদমদীঘি 
বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহারে পারিবারিক কলহের জেরে ঘরের তীরের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে এমরান হোসেন (২৩) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

পরিবারের সদস্যরা জানান, এমরানের স্ত্রীর সাথে দ্বন্দ্ব চলছিল। এ কারনে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন। এমরান উপজেলার সান্তাহার পৌর এলাকার পূর্ব লকুকলোনীর আফির উদ্দীনের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানায়, উপজেলার সান্তাহারের পূর্ব লকু কলোনী এমরান হোসেনের সাথে তার স্ত্রীর কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে তার স্ত্রী শশুর বাড়িতে চলে যান। স্ত্রীকে ফেরাতে না পেরে অভিমান করে বৃহস্পতিবার রাতে প্রতিদিনের মতো খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন এমরান। শুক্রবার সকালে এমরানের বাবা তার শয়ন ঘরের দরজায় তাকে ডাকতে থাকে। তিনি কোনো সাড়া না পেয়ে দরজা ভেঙে দেখতে পান ঘরের তীরের সাথে গলায় ওড়নার ফাঁস লাগানো ছেলের লাশ ঝুলেছে। বাবার চিকিৎকারে প্রতিবেশিরা দৌড়ে এসে দেখতে পান এমরানের মরদেহ। খবর পেয়ে পুলিশ শুক্রবার দুপুরে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক আনিছুর রহমান আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট এলে মূল কারন জানা যাবে।

print